ব্লগিং কিভাবে শুরু করবেন?

ব্লগিং হলো একটি অনলাইন প্লাটফর্ম যেখানে আপনি আপনার লেখার দক্ষতা ব্যবহার করে আপনার বিষয়বস্তু শেয়ার করতে পারেন।

ব্লগিং একটি দুর্দান্ত উপায় আপনার দক্ষতা বা জ্ঞানকে অন্যদের সাথে শেয়ার করার জন্য।

এবং সেই সাথে একটি অনলাইন কমিউনিটি তৈরি করার এমনকি ইনকাম করার জন্যও।

যদি আপনি ব্লগিং শুরু করতে চান এবং ব্লগিং এ সফল হতে চান,

তাহলে অবশ্যই নিচের দেওয়া নির্দেশনা গুলো অনুসরণ করতে করুন:

একটি নিশ (Nich) বেছে নিন

ব্লগিং শুরু করার আগে, আপনাকে প্রথমে একটি নিশ / বিষয় বা ক্যাটাগরি বেছে নিতে হবে যে সম্পর্কে আপনি লিখতে আগ্রহী।

এটি হতে পারে আপনার পেশা, আপনার শখ, বা এমনকি এমন একটি বিষয় যা সম্পর্কে আপনি অনেক কিছু জানেন।

আপনার নিশ নির্বাচন করার সময়, এটি এমন একটি বিষয় হওয়া উচিত যা জনপ্রিয় এবং যেখানে প্রচুর ভিজিটর আসে।

আরো পড়ুন: আকাশে স্যাটেলাইট ধ্বংসের পর কি পরিণতি হয়?

একবার আপনি একটি নিশ বেছে নিয়ে নেওয়ার পরে, আপনাকে একটি ডোমেইন নাম এবং হোস্টিং নির্বাচন করতে হবে।

ডোমেইন নাম হলো আপনার ব্লগের ঠিকানা, যেমন www.bloggersbd24.com। হোস্টিং পরিষেবা হলো সেই পরিষেবা যা আপনার ব্লগের ফাইলগুলিকে ইন্টারনেটে সংরক্ষণ করে।

একটি ব্লগ প্ল্যাটফর্ম নির্বাচন করুন

ব্লগিং প্ল্যাটফর্ম হলো একটি সফটওয়্যার যা আপনাকে আপনার ব্লগ তৈরি এবং পরিচালনা করতে দেয়।

ব্লগিং প্ল্যাটফর্মগুলির মধ্যে কিছু জনপ্রিয়  হলো WordPress, Blogger, এবং Tumblr

আপনি চাইলে পেইড ডোমেইন ও হোস্টিং  ছাড়া সম্পূর্ণ বিনামূল্যে Blogger.com এ ব্লগস্পট সাব-ডোমেইনে অথবা

wordpress.com এ ওয়ার্ডপ্রেস সাব-ডোমেইনে আপনার একটি ব্লগ তৈরি করতে পারেন।

একটি ব্লগ থিম নির্বাচন করুন

ব্লগ থিম হলো আপনার ব্লগের চেহারা এবং অনুভূতিকে প্রকাশ করে।

অনেক ধরনের ফ্রি ও পেইড ব্লগ থিম অনলাইনে রয়েছে, তাই আপনি আপনার ব্লগের নিশ এর সাথে মানানসই হয় এরকম

পছন্দের একটি থিম বেছে নিতে পারেন।

আপনার প্রথম ব্লগ পোস্ট লিখুন

একবার আপনি একটি ব্লগ প্ল্যাটফর্ম এবং একটি ব্লগ থিম নির্বাচন করে নেওয়ার পরে, আপনি আপনার প্রথম ব্লগ পোস্ট লিখতে শুরু করতে পারেন।

ব্লগ পোস্টগুলি আকর্ষণীয় এবং তথ্যপূর্ণ হওয়া উচিত।

আপনি আপনার ব্লগ পোস্টগুলিতে ছবি, ভিডিও, এবং অন্যান্য মিডিয়া সামগ্রীও যুক্ত করে একটি এসইও ফ্রেন্ডলি পোস্ট করতে পারেন।

আপনার ব্লগ পোস্টগুলি প্রচার করুন

ব্লগ পোস্টগুলি প্রচার করার জন্য আপনি বিভিন্ন উপায় ব্যবহার করতে পারেন।

আপনি আপনার ব্লগ পোস্টগুলিকে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করতে পারেন, যেমন, ফেসবুক, টুইটার, লিংকডইন, ইন্সটাগ্রাম, পিন্টারেস্ট ইত্যাদি।

ধৈর্য ধরুন এবং আপনার ব্লগকে নিয়মিত আপডেট রাখুন

ব্লগিং একটি ধৈর্যশীল প্লাটফর্ম । আপনি একদিনেই সফল হবেন না।

তবে, আপনি যদি নিয়মিত ব্লগ পোস্ট লিখেন এবং আপনার ব্লগকে আপডেট রাখেন, তাহলে আপনি অবশ্যই সফল হবেন।

শেষ কথা

ব্লগিং হলো একটি দুর্দান্ত উপায় আপনার দক্ষতা বা জ্ঞানকে অন্যদের সাথে শেয়ার করার জন্য।

আপনি যদি ব্লগিং শুরু করতে চান, তাহলে উপরের ধাপগুলি সঠিক ভাবে অনুসরণ করে আজ-ই শুরু করে দিন আপনার ব্লগিং ক্যারিয়ার।

আপনার জন্য রইল শুভ কামনা, আপনার ব্লগিং ক্যারিয়ারকে আরো সহজ করতে নিয়মিত

BloggersBD24.com ভিজিট করুন এবং আমাদের ফেসবুক গ্রুপে  অভিজ্ঞ ব্লগারদের সাথে যুক্ত হউন।

এতে করে ব্লগিং এ যে কোন সমস্যা গ্রুপে পোস্ট করে সমাধান নিতে পারবেন এবং অনেক কিছু অন্যদের কাছ থেকে শিখতে পারবেন।

আজকের মত এখানেই বিদায় নিচ্ছি, দেখা হবে পরবর্তি অন্য কোন আর্টিকেলে।
আল্লাহ হাফেজ।

6 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *